কটিয়াদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম করোনায় আক্রান্ত

238

মাইনুল হক মেনু, স্টাফ রিপোর্টার :

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলার আলোচিত করোনাযোদ্ধা মোহাম্মদ আশরাফুল আলম করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ মহামারি করোনায় উপজেলার সাধারণ জনগণকে সামাজিক দুরুত্ব বজায়, মাস্ক ব্যবহার ও জনসচেতনতা করতে নিরলস ভাবে কাজ করেছেন নির্ভীক ও সাহসী এ করোনাযোদ্ধা মোহাম্মদ আশরাফুল আলম। যিনি নিজের জীবন বাজি রেখে সবার জীবনের নিরাপত্তা দিতে দিন রাত ছুটে চলেছেন উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। তিনি দ্রব্যমূল্যের বাজার নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন। কখনো গরীব অসহায় মানুষদের ত্রাণ সহায়তা দেয়ার জন্যও ছুটে চলেছেন অসহায় মানুষজনের কাছে। নিজের দায়িত্বব আর কর্তব্যের প্রতি অটল থেকে কখনো একটু সময়ের জন্যও নিজ পরিবারের সদস্যদের সময় দিতে পারেননি তিনি। স্বাস্থ্য বিধি মানতে জনসচেতনতা কার্যক্রম, ত্রাণের চাল চুরি, নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ, বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধে চালিয়েছেন ব্যাপক তৎপরতা। দ্রব্য মূল্য উর্দ্ধগতি রোধকরতে কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং করে তা নিয়ন্ত্রণ করেন, টিসিবির পণ্য বিক্রিতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, হতদরীদ্রদের জন্য দশটাকা কেজির চাল বিক্রির অনিয়ম রোধ, গরীব অসহায়দের জন্য ২০ কেজি করে চাউল দেয়ার সময় ওজনে যাতে কম না দেয় তা কঠোরভাবে মনিটরিং করা ও খাদ্যে ভেজাল মেশানোর অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন বহুবার। তিনি নিজের সততাকে পুঁজি করে মানব সেবায় কটিয়াদীবাসীর কথা চিন্তা করে করোনাকে মোকাবেলা করার জন্য করে গেছেন অকান্ত পরিশ্রম। ভাগ্যের খেলায় আজ তিনি নেজেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সাপ্তাহ খানেক আগে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আশরাফুল আলম ঠান্ঠা, জ্বর, গলা ব্যথা ও শুকনো কাশিসহ করোনা উপস্বর্গ অনুভব করলে ২৪ জুলাই নমুনা সংগ্রহ করে পরীার জন্য পাঠানো হয়। ২৬ তারিখ রিপোর্টের ফলাফলে তার শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ সনাক্ত হয়। তিনি বর্তমানে বাসায় আইসোলেশনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ২৭ জুলাই সোমবার কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তানভীর হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কটিয়াদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, গত রোববার রাতে স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে আমাকে জানানো হয়েছে আমার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। তাই মহান আল্লাহপাক আমাকে যেন দ্রুত সুস্থতা দান করে সেজন্য আপনাদের সকলে কাছে দোয়া কামনা করছি। আমার জন্য সকলে দোয়া করবেন। সুস্থ হয়ে যেন আবার মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে পারি।