মিসরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

6

আফছার হোসাইন (মিশর থেকে)

নীল নদ আর পিরামিডের দেশ মিশরে প্রবাসী বাংলাদেশী, স্থানীয় ও বিদেশী অংশগ্রহণকারীদের
সুবিধার্থে ২০শে ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় শুরু হয় মহান ভাষা দিবসের মূল অনুষ্ঠান।

মোহাম্মদ ফেরদৌস এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত, তর্জমা, ভাষা শহীদদের রুহের মাগফেরাত, দেশ ও জাতির শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নতি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে ঢাকা থেকে প্রেরিত মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধান মন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বানী পাঠ করে শোনানো হয়।

কায়রো বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা বিভাগের স্নাতকোত্তর ছাত্র ডাক্তার আরিফুল হক এর আলোচনার সূত্রপাত দিয়ে ক্রমান্বয়ে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ স্টুডেন্ট অর্গানাইজেশন এর সভাপতি, মুক্তিযুদ্ধার সন্তান এবং জাতিসংঘে (খাদ্য ও কৃষি সংস্থা) কর্মরত মিশর প্রবাসী নাফিজ আহমেদ খান ও বাংলাদেশী প্রবাসী নাগরিকবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের সমাপনী মূল বক্তব্য মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মনিরুল ইসলাম মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ইতিহাস ও তাৎপর্যের উপর বক্তব্য উপস্থাপন করেন। বক্তব্যের শুরুতেই ভাষা শহীদ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি তাঁর বক্তৃতায় একুশের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে একটি মর্যাদাশীল দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে গড়ার কাজে প্রত্যেককে তার নিজ নিজ অবস্থান থেকে সর্বাত্মক আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন যে, ২০২০-২০২১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে যা বাঙ্গালী জাতির ইতিহাসে অনন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে।

আলোচনা শেষে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশী ছাড়াও স্থানীয় মিসরীয়রা উক্ত অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মালা পরিবেশন করেন, যা দর্শকের বিমুগ্ধ করে।
অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলকে রাতের খাবারে আপ্যায়ন করা হয়।
পর দিন ২১শে ফেব্রুয়ারি সকাল ৯.৩০ ঘটিকায় দুতাবাস প্রাঙ্গনে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন ও অস্থায়ীভাবে নির্মিত শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মান্যবর রাষ্ট্রদূত। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দুতাবাসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী ও প্রবাসী বাংলাদেশীরা।

কিশোরগঞ্জ বার্তা/ এস এম রিফাত