সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের উদ্যোগে মানববন্ধন সমাবেশ

5

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা মানবন্ধন ও সমাবেশে করেছেন।
রোববার দুপুর ১২টা থেকে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা। মানববন্ধনে সাংবাদিকদের দাবির সাথে আইনজীবী, মানবাধিকার কর্মী, উন্নয়নকর্মী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিনিধিগণ সংহতি প্রকাশ করেন।

এ সময় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক বখতিয়ার শিকদার, আলমগীর ইউসুফ, আবু নাছের মঞ্জু, জামাল হোসেন বিষাদ, ফুয়াদ হোসেন, আকাশ মোঃ জসিম, সুমন ভৌমিক, মাহবুবুর রহমান, মাওলা সুজন, জেলা আইনজীববী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট গুলজার আহমেদ জুয়েল, উন্নয়ন সংস্থা এনআরডিএস এর প্রধান নির্বাহী আবদুল আউয়াল।

বক্তাগণ মুজাক্কিরের খুনীদেরকে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের জন্য প্রশাসনকে আল্টিমেটাম দিয়ে প্রশাসন এতে ব্যর্থ হলে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দেন।
একই দাবিতে কোম্পানীগঞ্জ ও চাটখিল সহ জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন সাংবাদিকরা।
গত শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশির হাট পূর্ব বাজারে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের অনুসারীদের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে সংবাদ সংগ্রহের সময় সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কিরকে গুলিবিদ্ধ হন। শনিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার ও অনলাইন পোর্টাল বার্তা বাজারের প্রতিনিধি ছিলেন। তিনি উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের নোয়াব আলী মাস্টারের ছেলে। নোয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে সম্প্রতি রাষ্ট্র বিজ্ঞানে মাস্টার্স শেষ করেন সাংবাদিকতায় যুক্ত হন মুজ্জাকির।